বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৩:০০ অপরাহ্ন

অভিজাত এলাকায় অভিজাত ময়লা পেয়েছি : মেয়র আতিক

জনশক্তি ডেক্স:
  • আপডেট সময়: শনিবার, ১১ মে, ২০২৪ ২:০৫ pm

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেছেন, শাড়ি-পাঞ্জাবি বিভিন্ন ধরনের পণ্য প্রদর্শনীর আয়োজন হয়। ময়লা-আবর্জনার প্রদর্শনী আমরা প্রথমবারের মতো আয়োজন করলাম। খাল পরিষ্কার করতে গিয়ে আমরা অভিজাত এলাকায় অভিজাত সব ময়লা পেয়েছি।

তিনি বলেন, প্যারিস খাল, লাউতলা খাল, গুলশান লেকে দেখলাম অভিজাত এলাকার অভিজাত সব ময়লা। তখন আমার কাছে মনে হলো ময়লা-আবর্জনাগুলো রেখে দিয়ে একটি প্রদর্শনীর আয়োজন করি। যেন মানুষ এগুলো দেখে নিজেরা সচেতন হয়।

শনিবার (১১ মে) রাজধানীর গুলশান-২ এ ডিএনসিসির নগর ভবনের সামনে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে খালে, ড্রেনে ও যত্রতত্র ফেলে দেওয়া বর্জ্যের প্রদর্শনীর উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, প্রদর্শনী করতে চেয়েছিলাম ৩ দিনের। তবে এই প্রদর্শনে চলবে আগামী শনিবার (১৮ মে) পর্যন্ত। এখানে সব ধরনের আবর্জনা আছে। ড্রেন ও খাল থেকে আমরা পেয়েছি সোফা, সুটকেস, কমোড ও রিকশা। তোশক, বালিশ ও রিকশা যদি ড্রেনে, খালে বা লেকের মধ্যে ফেলা হয়, তাহলে তো জলাবদ্ধতা হবেই। কোন খাল, লেক বা ড্রেন থেকে কোন ময়লা-আবর্জনা সংগ্রহ করেছি তাও লিখে রাখা হয়েছে।

নগরবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে মেয়র বলেন, আসুন আমরা যেন ড্রেনে, খালে বা লেকে কোনও ধরনের ময়লা না ফেলি। গত ৬ মাস যাবত আমরা ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার করে যাচ্ছি। আরেক দিক থেকে ময়লা-আবর্জনায় ভরাট হচ্ছে। চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার জন্যই এ প্রদর্শনীর আয়োজন করেছি। নগরবাসীদের বলতে চাই আপনাদের সহযোগিতা আমাদের একান্ত প্রয়োজন। রাজধানীতে কোটি লোকের বসবাস। নগরবাসী যদি এগিয়ে না আসে রাজধানী পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন আমাদের (ডিএনসিসির) জন্য দুষ্কর ব্যাপার হয়ে যাচ্ছে।

মেয়র বলেন, এডিস মশার মৌসুম চলে এসেছে। কখনো রোদ উঠছে, কখনো আবার বৃষ্টি হচ্ছে। জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে আমরা কাজ করবো। আজকে প্রদর্শনীতে স্কুলের শিক্ষার্থীরা এসেছে। পরশুদিন ইংলিশ মিডিয়ামের শিক্ষার্থীরাও আসবে। এ ধরনের প্রচারণা আমাদের চালাতে হবে।

শেয়ার করুন:

আরো সংবাদ
© All rights reserved © janashokti

Developer Design Host BD