বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৫:০৯ অপরাহ্ন

ইউনূসের মামলা পর্যবেক্ষণে আন্তর্জাতিকভাবে কোনো আবেদন আসেনি

জনশক্তি ডেক্স:
  • আপডেট সময়: বৃহস্পতিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ ৬:৫৭ pm

শান্তিতে নোবেলজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে চলমান মামলা পর্যবেক্ষণে আন্তর্জাতিকভাবে কোনো আবেদন এখনও আসেনি বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

বৃহস্পতিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সরকারপ্রধানের জাতিসংঘ ৭৮তম সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দেওয়া নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন মন্ত্রী।

ড. ইউনূসের পক্ষে বিশ্বনেতারা বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে খোলা চিঠি দিয়েছেন। সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বিশ্ব নেতারা চাইলে ইউনূসের মামলা পর্যবেক্ষণ করতে পারে। মামলা পর্যবেক্ষণে আন্তর্জাতিকভাবে কোনো আগ্রহ এসেছে কিনা-জানতে চাওয়া হয় পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে। জবাবে মন্ত্রী বলেন, না। কেউ যোগাযোগ করেনি।

মোমেন বলেন, এটা খুবই দুঃখজনক। আমরা সব সময় বলছি, তিনি সম্মানিত নাগরিক এবং তিনি দেশের আইন-কানুন জানেন। তার বিরুদ্ধে মামলা সরকার করেনি। যারা ভুক্তভোগী তারা করেছে। মামলাটা আইনি প্রক্রিয়ায় চলছে। আমাদের কিছুই করার নেই। আদালতকে সরকার কোনোভাবে প্রভাবিত করবে না। আমাদের আইন ব্যবস্থা স্বাধীন।

মামলা বন্ধ করার ক্ষমতা সরকারে নেই উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিদেশি পণ্ডিতরা, নামিদামি লোকরা তারা পুরটা জানেন না। তারা কেস সম্পর্কে না জেনে বলছেন, কেসটা বন্ধ করে দেন। সরকারের কোনো ক্ষমতা নেই কেস বন্ধ করার। আইনের শাসন মানতে হলে সরকারের কোনো ক্ষমতা নেই হঠাৎ করে কেস বন্ধ করার। নোবেল বিজয়ী হলেই যে সব অপরাধের ঊর্ধ্বে, এটা ঠিক নয়।

ড. ইউনূসের উদ্দেশে মোমেন বলেন, যদি উনি কোনো অপরাধ না করে থাকেন, তালে তো ভয়ের কোনো কারণ নেই। জাজমেন্ট তার পক্ষে যাইতে পার, যদি অপরাধ না করে থাকেন। তার অপরাধ বোধ থাকার কারণটা তো খুব দুঃখজনক। এ রকম নামিদামি লোক এ ভয়ে আছেন কেন? দোষী থাকলে একটু ভয় থাকে।

তিনি বলেন, উনি যদি সৎ সাহসী হয়ে থাকেন, উনি মামলা মোকাবিলা করবেন। এ দেশের নাগরিক হলে তিনি মামলায় যা হয় গ্রহণ করবেন। এ দেশের আইনটা তাকে মেনে চলতে হবে।

মোমেন বলেন, শুনেছি, তিনি একটা তহবিল তৈরি করে বিভিন্ন লোকের সই নিয়ে আসছেন। আমরা আশা করব, তারা (বিদেশিরা) এসে মামলা নিয়ে লড়াই করতে পারেন।

সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সেহেলী সাবরীন উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন:

আরো সংবাদ
© All rights reserved © janashokti

Developer Design Host BD