বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৪:৫৮ অপরাহ্ন

নির্বাচনী ব্যবস্থায় মানুষের আগ্রহ নেই: গোলাম সারোয়ার মিলন

জনশক্তি ডেক্স:
  • আপডেট সময়: রবিবার, ১২ মে, ২০২৪ ১১:২৮ am

নিজস্ব প্রতিনিধি: বর্তমান নির্বাচন ব্যবস্থায় মানুষের আগ্রহ নেই বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী ও জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান গোলাম সারোয়ার মিলন। গতকাল (১১মে) রাতে বে-সরকারি একটি টেলিভিশনের টকশোতে উপস্থিত হয়ে নির্বাচনের প্রশ্নের উত্তরে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

গোলাম সারোয়ার মিলন বলেন, আমরা নির্বাচন বিশ্বাস করি আমরা নির্বাচনে যাই, অবশ্যই আমাদের দাবি থাকে নির্বাচনটা অংশগ্রহণমূলক এবং নির্বাচনটা গ্রহণযোগ্য হোক, এটা আমরা চাই। বর্তমান ভোট ব্যবস্থায় নির্বাচনী ব্যবস্থায় মানুষের আগ্রহ নেই। উপজেলা নির্বাচনে সরকারি হিসাব মতে প্রায় ৩৫% ভোট হয়েছে। নির্বাচন তো শুধুমাত্র আওয়ামী লীগ বনাম আওয়ামী লীগেরই, আমি আর ডামি। সুতরাং এখানে বাহিরের কেউ নির্বাচন করে নাই। বলা যায় সেখানে নির্বাচন ভালো এবং ৩৫ পার্সেন্ট ভোট পড়েছে। কথা হল এই নির্বাচন তো জনগণ চায় না, জনগণ চায় একটি প্রতিদ্বন্দিতামূলক নির্বাচন।

জাতীয় পার্টির এই নেতা বলেন, উপজেলা পদ্ধতির জনক পল্লীবন্ধু হোসেন মোহাম্মদ এরশাদ, যিনি এই পদ্ধতি চালু করার পর সমস্ত বাংলাদেশে উন্নয়নের জোয়ার বয়েছিল। বিচার ব্যবস্থাকে পর্যন্ত উপজেলা পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। এর পরে বিএনপি ক্ষমতায় এসে উপজেলা পদ্ধতি বাতিল করে দিল, পরবর্তীতে আওয়ামী লীগ সরকার উপজেলা নির্বাচন পদ্ধতি ফের চালু করল, কিন্তু আংশিক চালু হয়েছে পূর্ণাঙ্গ নয়। বর্তমান ব্যবস্থায় উপজেলা চেয়ারম্যানদের বিশেষ কোন ক্ষমতা নাই। আমাদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ছিল একটি আধুনিক বাংলাদেশ, সামাজিক ন্যায় বিচারের বাংলাদেশ আমরা গড়ব। আজকে স্বাধীনতার ৫২ বছর পেরিয়ে গেলও আমরা এখনও গণতন্ত্রকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে পারি নাই।

মিলন বলেন, আমাদের নয় বছর আমরা যে কাজ করেছি আমরা আমাদের পক্ষে বলতেই পারি। বিএনপি যে কাজ করেছে তারাও তাদের কথা বলতেই পারে। আওয়ামী লীগ সরকার পনের বছর ধরে যে কাজ করছে, তারা তাদের উন্নয়নের কথা বলতেই পারে। প্রত্যেক সরকারের আমলেই উন্নয়ন হয়েছে এটা একটা ধারাবাহিক ব্যাপার। এটা সত্যি কথা যে একটা সরকার, তাকে আমরা দেখতে পারি আর নাই পারি, ১৫ বছর ক্ষমতা থাকার কারণে উন্নয়ন করেছেন। এই ১৫ বছর যদি বিএনপি কিংবা জাতীয় পার্টি থাকতো, আমার মনে হয় উন্নয়নটা এরকমই হতো। হয়তোবা প্রেক্ষাপট ভিন্ন থাকতো, সেখানে দুর্নীতি কম ছিল না বেশি ছিল সেখানে স্বচ্ছতা এবং জবাবদিহিতা ছিল কিনা। এ সরকারের আমলে উন্নয়ন হয়েছে কিন্তু দুর্নীতি ও বৈষম্য বেড়েছে। আজকে স্বচ্ছতা এবং জবাবদিহীতার অভাব। স্বাধীনতার ৫২টি বছর পেরিয়ে গেছে কিন্তু আমরা এখনো সুশাসনকে নিশ্চিত করতে পারি নাই।

তিনি বলেন, আমরা বিশ্বাস করি সাদাকে সাদা কালোকে কালো বলা। উপজেলা নির্বাচন হয়েছে বা নির্বাচন আগেও হয়েছে, সামনেও হবে, এই নির্বাচনকে সকলের কাছে গ্রহণযোগ্য করতে হলে সকল দলের অংশগ্রহণ দরকার।

শেয়ার করুন:

আরো সংবাদ
© All rights reserved © janashokti

Developer Design Host BD