বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:২০ পূর্বাহ্ন

বন্ধু আজীবনের সম্পদ : এসএসসি ২০০০ ময়মনসিংহ

জনশক্তি ডেক্স:
  • আপডেট সময়: শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২৩ ১১:১৬ pm

বন্ধুর অবস্থান নয়, বন্ধুত্ব দেখে বন্ধু নির্বাচন করো। নিঃসন্দেহে ঠকবে না। কেননা বন্ধু আজীবনের সম্পদ। অনেকেই সুইমিংপুলের পাশে থেকেও ময়লা ডোবাই গা-ভাসায়। প্রকৃত বন্ধু চিনতে ভুল করে। একটি ভুল সারাজীবনের কান্না বয়ে আনে। জীবনে চলার পথে ভালো-মন্দ দু’ধরনের বন্ধু থাকে। তাই অনেকেই বন্ধুত্বের মর্ম বুঝতে পারে না।মরণকালে ছুটে এসে সম্পর্কের গুরুত্বে ফুল দিয়ে তখন অশ্রু ছাড়া কিছুই (পাবেনা) থাকে না। তাই দাঁত থাকতে দাঁতের মর্মে বন্ধুত্বের সম্পর্কের মূল্যায়ন বুঝতে শেখাই উত্তম।

ময়মনসিংহ এসএসসি-২০০০ ব্যাচের অনেকের সঙ্গে দীর্ঘদিন যোগাযোগ না থাকা বন্ধুরা একে অপরকে পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। এসময় খোঁজ নেন পরিবার-পরিজনের, ব্যক্ত করেন নিজেদের আবেগ অনুভূতি।

জীবনের তাগিদে বন্ধুদের সঙ্গে দেখা হওয়াটা আজকাল অনেকের হয়ে ওঠে না। একথা মাথায় রেখে বন্ধুদের একত্রিত করতে রাতুল সরকারের ক্ষুদ্র আয়োজন। যা ময়মনসিংহ এসএসসি- ২০০০ ব্যাচের মিলন মেলায় পরিণত হয়েছে।

শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) সন্ধ্যায় আকুয়া ময়মনসিংহ সালাম সরকারের আঙ্গিনায় শীতের আগমনী বার্তা উপলক্ষে এসএসসি- ২০০০ ব্যাচের বন্ধুদের রাত্রিকালীন খেলাধূলা ও খাওয়ার আয়োজন করেন রাতুল সরকার।

অনুষ্ঠানে ময়মনসিংহ শহরের নয়, অন্য জেলার এসএসসি- ২০০০ ব্যাচের বন্ধুরাও এসেছে বলে জানান আয়োজক বন্ধু রাতুল।

এসএসসি- ২০০০ ব্যাচ ময়মনসিংহ জোনের এডমিন রানা এবং সামি বলেন, এসএসসি- ২০০০ ব্যাচ ২৩ বছর পর একত্রিত হয়েছি। এই আনন্দ ভাষায় প্রকাশ করা যাবে না। কৈশোরের বন্ধুত্ব কখনও হারায় না। কর্মব্যস্ততায় আমরা হয়তো ছেলেবেলার কথা ভুলে থাকি, কিন্তু ছেলেবেলা কখনও মুছে ফেলা যায় না। এ কারণে জীবন চলার পথে যতো মানুষের সঙ্গেই বন্ধুতু হোক না কেন, ছেলেবেলার বন্ধুত্বের মতো তারা কখনও স্মৃতিযোগ্য নয়। জীবনে একজন হলেও প্রকৃত বন্ধুর প্রয়োজন। আর স্কুল লাইফের ফ্রেন্ডই হতে পারে সেই প্রকৃত বন্ধু। এ কারণেই আমরা সবাই মিলে চেয়েছিলাম এমন একটা আয়োজন করতে যেখানে সবাই একসঙ্গে বহুদিন পর একত্রিত হতে পারবো। সন্ধ্যায় রাতুলের বাসায় খেলাধূলা করলাম। অসম্ভব ভালো লাগায় মনটা ভরে গেছে। এমন সফল একটি আয়োজন আমার ছেলেবেলা, আমাদের স্কুলজীবনকে ফিরিয়ে দিয়েছে। আমরা আরো বড় পরিসরে বন্ধুদের নিয়ে স্বপ্ন দেখতে চাই। আজকে সেই স্বপ্নের পথে আমাদের চলা শুরু হলো।

বন্ধু লিয়ন বলেন, রাতুলের এই আয়োজন বহুদিন পর আমাদের অনেককে একত্রিত করেছে।অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছেন সবাইকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই। এক সময় আমরা অনেকে একসঙ্গে পড়াশোনা করলেও, জীবিকার তাগিদে অনেকে দেশের বাইরে বা বিভিন্ন জেলায় কর্মরত। জীবনের এমনই নিয়ম। এখন হয়তো কালেভদ্রে সেসব বন্ধুর সঙ্গে দেখা হয়। অসাধারণ এক অভিজ্ঞতা হলো। সবচেয়ে ভালো লাগছে, আজকের এই আয়োজন কর্পোরেট অনুষ্ঠানের মত নয়। আজ যাদের পাচ্ছি না ভবিষ্যতে পাবো এমন আশাবাদ ব্যক্ত করছি।

শেয়ার করুন:

আরো সংবাদ
© All rights reserved © janashokti

Developer Design Host BD