সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৪৬ অপরাহ্ন

মানিকগঞ্জ-২ আসনে ট্রাক মার্কার পথসভায় জনতার ঢল

জনশক্তি ডেক্স:
  • আপডেট সময়: শুক্রবার, ২৯ ডিসেম্বর, ২০২৩ ১১:৫০ am

জসিম উদ্দিন সরকার, মানিকগঞ্জ: যেখানেই টুলুর পথসভা, সেখানেই জনতার ঢল নামে, পথসভা পরিনত হয় জনসভায়। মানিকগঞ্জ-২ (সিংগাইর, হরিরামপুর উপজেলা ও হাটিপাড়া, ভাড়ারিয়া, পুটাইল ইউনিয়ন) এ ট্রাক প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন মানিকগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের কোষাদক্ষ দেওয়ান জাহিদ আহমেদ টুলু। ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রচার-প্রচারণায়। কোথাও উঠান বৈঠক আবার কোথাও পথসভা করে তিনি তার ট্রাক মার্কা প্রতীকের প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। তবে ওই সকল উঠান বৈঠক আর পথসভায় সাধারণ জনতার ঢল লক্ষকরা গেছে, উঠান বৈঠক আর পথসভা পরিনত হচ্ছে জনসভায়।

গতকাল বৃহস্পতিবার (২৮ডিসেম্বর) দুপুর থেকে সিংগাইর উপজেলার চান্দহর ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডে পথসভা করেন তিনি। ইউনিয়নের মানিকনগর বাজারে হয় সবচেয়ে বড় রাত্রীকালীন পথসভা, চান্দহর উইনিয়ন ও আশে পাশের সাধারণ জনতা ও নেতাকর্মীদে ব্যাপক উপস্থিতিতে পথসভাটি পরিনত হয় জনসভায়। শত শত নেতাকর্মী ও সমর্থকবৃন্দ জড়ো হয় সভাটিতে।

এরপর রাত্রীকালীন সভা অনুষ্ঠিত হয়, জামির্তা ইউনিয়নের চন্দননগর ঈদগাঁহ মাঠে, সেখানেও স্থানীয় জনতার উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে।

সব শেষে রাত্রীকালীন সভা অনুষ্ঠিত হয় জামির্তা উইনিয়নের কাঞ্চননগরে। সেখানে বিকেলে উক্ত সভা অনুষ্ঠিত হবার কথা থাকলেও, তা শুরু হয় রাত ১০টার দিকে, অধীর আগ্রহ নিয়ে বসে থাকেন স্থানীয় লোকজন, তাদের প্রিয় নেতা দেওয়ান জাহিদ আহমেদ টুলুকে একটি বারের জন্য দেখতে সেই বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত অপেক্ষা করেন। সেখানে ফুলের পাপড়ি ছিটিয়ে দেওয়ান জাহিদ আহমেদ টুলুকে বরণ করে নেন কাঞ্চননগরের সাধারণ মানুষ।

দেওয়ান জাহিদ আহমেদ টুলু বলেন, নেতাকর্মী ও সমর্থকদের ভালবাসায় তিনি মুগ্ধ। তারা তাকে ভালবাসেন বলেই কনকনে শীত উপেক্ষা করে এত রাতে বসে আছেন তাকে একটিবার দেখতে। তারা তাকে ভোট দিবেন, এতে তিনি বিন্ধুমাত্র সন্দেহ করেন না। তাকে ভোট না দিলে, তার প্রতি সমর্থন না থাকলে শত শত মানুষ তার জনসভায় তার অপেক্ষা করতেন না। তাকে না ভালবাসলে মানুষ কনকনে শীত উপেক্ষা করে বসে থাকতেন না।

তিনি মানিকগঞ্জ-২ আসনের স্বার্বিক উন্নয়নে প্রতোশ্রুতি দেন এবং ট্রাক মার্কায় ভোট চান।

এসকল সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মাজেদ খান, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক সায়েদুল ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান শাহাদাৎ হোসেন, শওকত হোসেন বাদল, আবুল হোসেন, জাহিদুল ইসলাম ভূইয়া, সাবেক চেয়ারম্যান আবু বকর সিদ্দিক ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শারমিন আক্তার, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রমিজ উদ্দিন, স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক ইলিয়াছ হোসেন লিটনসহ আরো অনেকে।

এসময় স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, কৃষকলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন:

আরো সংবাদ
© All rights reserved © janashokti

Developer Design Host BD